শ্রীপুরে সরকারি চালে ৩০কেজির বস্তায় ২২কেজি, আ’লীগ নেতা শ্রীঘরে!

শ্রীপুরে সরকারি চালে ৩০কেজির বস্তায় ২২কেজি, আ'লীগ নেতা শ্রীঘরে!
গাজীপুরের শ্রীপুরে সরকারি চালের ৩০ কেজির বস্তায় ২২ কেজি বিতরণের অভিযোগে একজনকে কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত।
১৫ অক্টোবর দুপুরে উপজেলার বরমী ইউনিয়নের সাতখামাইর বাজারের এ ঘটনা ঘটে।
জানা যায়, খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় প্রতি মাসে জনপ্রতি ৩০কেজি চাল বিক্রির কথা থাকলেও পরিবেশক কারচুপির মাধ্যমে বস্তায় ২২কেজি চাল দিচ্ছিলেন। ভোক্তার অভিযোগের প্রেক্ষিতে কারচুপি ধরা পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের কাছে। পরে পরিবেশককে ৬মাসের জেল দেন আদালত।
সাজাপ্রাপ্ত আব্দুল লতিফ মণ্ডল(৪৫) উপজেলার বরমী ইউনিয়নের গাড়ারন গ্রামের আঃ রউফ ওরফে টিয়ার মন্ডলের ছেলে। তিনি মণ্ডল এন্টারপ্রাইজের সত্ত্বাধিকারী ও বরমী ইউনিয়ন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক।
গাজীপুর জেলা মেজিস্ট্রেটের নিদের্শনায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন শ্রীপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী মেজিস্ট্রেট এম.ডি শামসুল আরেফীন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ শামসুল আরেফীন।
ভ্রাম্যমান আদালত সূত্র জানায়, ওই পরিবেশক ১০টাকা কেজি দরে প্রতি বস্তায় ৩০কেজি চালের স্থলে কারচুপির মাধ্যমে কোনোটিতে ২০কেজি আবার কোনো বস্তায় ২২কেজি চাল দিচ্ছিলেন। এ নিয়ে ভোক্তারা প্রতিবাদ করলে পরিবেশকের সাথে বাকবিতণ্ডা হয়। বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনে জানালে তারা সেখানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চালায়। এ সময় বস্তা মেপে কারচুপির তথ্য নিশ্চিত হয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৪৬ ধারায় তাকে ৬ মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। একই সাথে ৩০হাজার টাকা  অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরো ৭দিনের জেলা দেওয়া হয়।