রিফাত হত্যা মামলা প্রাধাণ আসামির জামিন নামঞ্জুর : একজনকে হাজির হওয়ার জন্য পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের আদেশ

রিফাত হত্যা মামলা প্রাধাণ আসামির জামিন নামঞ্জুর : একজনকে হাজির হওয়ার জন্য পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের আদেশ
রিফাত হত্যা মামলা প্রাধাণ আসামির জামিন নামঞ্জুর : একজনকে হাজির হওয়ার জন্য পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের আদেশ
বহুল আলোচিত বরগুনার রিফাত শরীফ হত্যা মামলার প্রধাণ আসামি রাকিবুল হাসান রিফাত ফরাজির জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেছেন আদালত। একই সাথে এ মামলার চার আসামির জামিন আবেদন শিশু আদালতে প্রেরণ করার পাশাপাশি পলাতক এক আসামিকে আদালতে হাজির হওয়ার জন্য পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের আদেশ দেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচার মোঃ ইয়াসিন আরাফাত এ আদেশ দেন।
এ বিষয়ে এ মামলার বাদি পক্ষের আইনজীবী মোঃ মজিবুল হক কিসলু বলেন, রিফাত হত্যা মামলার ধার্য তারিখে বরগুনা জেলা কারাগারে থাকা আট আসামিকে আদালতে হাজির করে পুলিশ। এ ছাড়াও এ মামলায় জামিনে থাকা আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিও আদালতে হাজির হন।
তিনি আরো বলেন, ধার্য তারিখে আদালতে এ মামলার প্রধান আসামি রাকিবুল হাসান রিফাত ফরাজির জামিন আবেদন করা হয়। পরে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করেন। এছাড়াও এ মামলার অপ্রাপ্তবয়স্ক রাশিদুল হাসান রিশান ফরাজি, তানভীর হোসেন, অয়ালিউল্লাহ ওলি এবং মারুফ মল্লিকের জামিন আবেদন করা হয়। পরে আদালত তাদের জামিন আবেদন শুনানির জন্য শিশু আদালতে প্রেরণ করেন।
মজিবুল হক কিসলু আরো বলেন, এ মামলার পলাতক অপ্রাপ্তবয়স্ক  আসামি মোঃ নাইমকে আদালতে হাজির হওয়ার জন্য পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের আদেশ দিয়েছে আদালত। একই সাথে এ মামলার প্রাপ্তবয়স্ক তিন নম্বর আসামি মোহাইমিনুল ইসলাম সিফাতের বিরুদ্ধে ২০১৭ সালে দায়ের করা একটি হত্যাচেষ্টা মামলায় পুলিশ তাকে গ্রেফতার দেখিয়েছে।
গত ২৬ জুন রিফাত হত্যাকাণ্ড সংগঠিত হয়। এরপর গত ১ সেপ্টেম্বর বহুল আলোচিত এ মামলায় ২৪ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ। ২৪ আসামির মধ্যে ১৫ আসামিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এরপর আদালত পলাতক আসামিদের মালামাল জব্দের আদেশ দিলে সাতজন পলাতক আসামি আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। এ মামলায় অভিযুক্ত মোঃ নাইম ও মুসা নামের দুই আসামি এখনো পলাকত রয়েছেন।